সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৪০ অপরাহ্ন

রাজশাহীর তানোরে আওয়ামী লীগের ২২ ও বিএনপির ৪ জন প্রার্থী !

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১১৪৪ বার পঠিত

আলিফ হোসেন,তানোর : রাজশাহীর তানোরের দুটি পৌরসভায় আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ২২ জন এবং বিএনপির ৪ জন মাঠে রয়েছেন। এর মধ্যে তানোর পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ১২ জন ও বিএনপির দুইজন এবং মুন্ডুমালা পৌরসভায় আওয়ামী লীগের ১০ জন ও বিএনপির দুই জন মনোনয়ন প্রত্যাশী মাঠে রয়েছেন। তবে মুন্ডুমালা পৌরসভার বর্তমান মেয়র গোলাম রাব্বানী মেয়র পদে নির্বাচন না করার ঘোষণা দিয়ে এবার মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকায় নাম লেখাননি। এদিকে মুুন্ডুমালা পৌরসভায় মেয়র পদে গোলাম রাব্বানী নির্বাচন না করার ঘোষণা দিলেও তাঁর ঘনিষ্ঠ সহচর মুন্ডুমালা কলেজের নৈশপ্রহরী সাইদুর রহমানকে সমর্থন দিয়ে তার মনোনয়ন নিশ্চিত করতে জোর তৎপরতা শুরু করেছেন। কিন্ত্ত স্থানীয় সাংসদের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়ে বিরোধীতা ও পৃথক বলয় সৃস্টির নামে দলীয়কোন্দল সৃস্টি এবং বিভিন্ন নির্বাচনে নৌকা বিরোধীদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে নৌকা বিরোধী অবস্থান নিয়ে অনেকটা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এখানে মনোনয়ন দৌড়ে প্যানেল মেয়র আমির হোসেন আমিন ও তরুণ নেতৃত্ব আরিফ রায়হান তপন অনেকটা এগিয়ে রয়েছেন। অন্যদিকে বিএনপি থেকে পৌর বিএনপির সাবেক সম্পাদক ফিরোজ কবিরের নাম ঘোষণা করা হয়েছে, তবে পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ও বাধাইড় ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোজাম্মেল হক নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা করে অনড় রয়েছেন। অপরদিকে তানোর পৌরসভায় পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি ইমরুল হক দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকায় নাম লিখালেও স্থানীয় সংসদের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়ে সম্পর্কের অবনতি এবং সেই বিরোধের জের ধরে বিভিন্ন নির্বাচনে নৌকার বিপক্ষে অবস্থান ও দীর্ঘ প্রায় ৫ বছর আওয়ামী লীগের দলীয় এমনকি জাতীয় কোনো কর্মসুচিতেও তিনি অনুপস্থিত থেকে অনেকটা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে রাজনীতিতে আওয়ামী লীগের মুল স্রোতের পাশাপাশি দলীয় মনোনয়ন দৌড়ে অনেকটা পিছিয়ে পড়ে। এদিকে এই সুযোগে কাজে লাগিয়ে প্রসিদ্ধ ব্যবসায়ী, বিশিস্ট সমাজ সেবক আদর্শিক এবং তরুণ নেতৃত্ব আবুল বাসার সুজন স্থানীয় সাংসদ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে গভীর সখ্যতা গড়ে তোলার পাশাপাশি এলাকায় দান-অনুদান এবং বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মসুচি বাস্তবায়নের মাধ্যমে পৌরবাসির মধ্যে নিজের শক্ত অবস্থান গড়ে তুলে দলীয় মনোনয়ন দৌড়ে অন্যদের পিছনে ফেলে তিনি অনেকটা এগিয়ে গেছেন। অপরদিকে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে বর্তমান মিজানুর রহমান মিজানের মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হলেও তানোর উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও নির্যাতিত নেতা ১৪টি রাজনৈতিক মামলা মাথায় নিয়ে এসএম আব্দুল মালেক মন্ডল নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা করে প্রচার-প্রচারণার মাধ্যমে মাঠে শক্ত অবস্থান গড়ে তুলে এখানো অনড় রয়েছে। জানা গেছে, গত ৩ ডিসেম্বর বৃহস্প্রতিবার তানোর ও মুন্ডমালা পৌরসভায় আওয়ামী লীগ পৃথক পৃথকভাবে বিশেষ বর্ধিত সভার মধ্যদিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের এসব নামের তালিকা কেন্দ্রে প্রেরণ করেছে। অন্যদিকে মুন্ডুমালা পৌরসভার সাবেক মেয়র প্রয়াত শীষ মোহাম্মদ ও তানোর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত এমরান আলী মোল্লার স্মরণে পৃথক শোক সভায় বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মিজানুর রহমান মিজান ও ফিরোজ কবিরের নাম ঘোষণা করেছে

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2009-2022 bddhaka.com  # গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত # এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Developed BY ThemesBazar.Com