শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৩৩ অপরাহ্ন

রাজশাহীর তানোরে সেচ নিয়ে সংঘর্ষের আশঙ্কা

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০
  • ৭০৫ বার পঠিত

তানোর(রাজশাহী)প্রতিনিধি : রাজশাহীর তানোরের পাঁচন্দর ইউনিয়নের ইউপিতে বিএমডিএর একটি গভীর নলকুপে সেচ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এঘটনায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আঙ্কায় কৃষকরা উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছে।কৃষকরা বলছে, যদি সেচ নিয়ে কোনো অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে তাহলে এর দায় নিবে কে-? এদিকে বিএমডিএ’র বিরুদ্ধে দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগ উঠেছে। কারণ দীর্ঘদিন ধরে কৃষকরা সমিতির মাধ্যমে গভীর নলকুপটি পরিচালনার দাবিতে বিএমডিএ’র কাছে লিখিত অভিযোগ এমনকি স্কীমে অবস্থান ও মানববন্ধন করেছে। কিন্ত্ত রহস্যজনক কারণে বিএমডিএ কৃষকদের দাবি আমলে না নিয়ে নিরব ভুমিকা পালন করে চলেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত ২৬ নভেম্বর বৃহস্প্রতিবার বহিরাগত আলুচাষিদের সঙ্গে কৃষকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, তানোরের পাঁচন্দর ইউপির জেল নম্বর ৮০ কচুয়া মৌজার ৫৪ নম্বর দাগে অবস্থিত বিএমডিএর গভীর নলকুপের অপারেটর হাবিবুর রহমানকে স্কীমের কৃষকের মতামত উপেক্ষা ও রাজনৈতিক বিবেচনায় তাকে অপারেটর নিয়োগ করা হয়েছে। এদিকে পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় কয়েক মৌসুম থেকে গভীর কুপে পানি উঠার পরিমাণ হ্রাস পাওয়ায় স্কীমের প্রায় ২৫০ বিঘা জমিতে ঠিকমত সেচ দেয়া যাচ্ছে। কিন্ত্ত অপারেটর হাবিবুর অতিরিক্ত মুনাফার লোভে স্কীমের জমিতে সেচ না দিয়ে বহিরাগত আলু চাষির স্কীমের বাইরের প্রায় ১০০ বিঘা জমি স্কীমভুক্ত করেছে, এতে সেচ সঙ্কটের কারণে পুরো স্কীমে ফসলহানির আশঙ্কায় কৃষকরা সঙ্কিত হয়ে পড়েছে। কৃষক আজিজুর রহমান, আফসার আলী ও আকতার হোসেন জানান, গত বোরো মৌসুমে সেচ সঙ্কটের কারণে ২০ জন কৃষকের জমির ধান নস্ট হয়েছে। অন্যান্য কৃষকরা জানান, অপারেটর হাবিবুর বিভিন্ন অজুহাতে সেচচার্জ আদায়ের নামে অতিরিক্ত টাকা আদায় করেন। এছাড়াও ড্রেন মেরামত, লাইনম্যান, ট্রান্সফরমার মেরামত-ভোল্টেজ বাড়ানো, নৈশপ্রহরী, অফিস খরচ ও সিরিয়াল ইত্যাদি অজুহাতে কৃষকের কাছে থেকে জোরপুর্বক টাকা আদায় করছে। এমনকি গভীর নলকুপের আয় ব্যয়ের কোনো হিসাব তিনি কাউকে দেন না। কৃষকরা বলেন, অপারেটর ক্ষমতাসীন দলের নাম ভাঙিয়ে এসব অপকর্ম করছেন এতে দলের ভাবমুর্তিও ক্ষুন্ন হচ্ছে।এবিষয়ে জানতে চাইলে বিএমডিএ তানোর জোনের সহকারী প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, কৃষকের জন্যই গভীর নলকুপ তাই কৃষকের মতামতের ভিত্তিতে গভীর নলকুপ পরিচালনা করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।এবিষয়ে জানতে চাইলে অপারেটর হাবিবুর রহমান বলেন, অভিযোগ সঠিক নয়, তিনি বলেেন, স্কীমের বাইরে পানি দেয়া যাবে না এমন কোনো নিয়মের কথা তার জানা নাই। সমিতির মাধ্যমে গভীর নলকুপ পরিচালনা করলে সমস্যা কি এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সমস্যা নাই তবে সেটা সম্ভব নয়

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2009-2022 bddhaka.com  # গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত # এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Developed BY ThemesBazar.Com